April 16, 2024
ঘাড় ব্যথা কিসের লক্ষণ । ঘাড় ব্যথা ঔষধ । ঘাড় ব্যথার কারণ ও প্রতিকার ।

সাধারণত ঘাড় ব্যথা যে কোনো বয়সের মানুষের হতে পারে । ঘাড় ব্যথা  বিভিন্ন কারণে হতে পারে ।  আজকে আলোচনা করব ঘাড় ব্যথার কারণ ঘরোয়া উপায়ে এর প্রতিকার এবং ঘাড় ব্যথার ওষুধ এছাড়াও দেখে নেব ঘাড় ব্যথা কিসের লক্ষণ । এটি একটি সাধারণ সমস্যার অনেকেরই হয়ে থাকে ।

ঘাড়ের মাংসপেশি, জয়েন্ট , স্নায়ু বা হাড়ের ক্ষতি ঘাড় ব্যথার কারণ হতে পারে । এছাড়াও আরও অনেক  আরো কারণ রয়েছে সেগুলো কারণে ঘাড় ব্যথা হতে পারে ।  তাহলে আসুন দেখে নেয়া যাক কি কি কারনে বা কি কি লক্ষণ দেখলে বুঝতে পারবেন এসব ঘাড়ের ব্যথা । 

ঘাড় ব্যথা কিসের লক্ষণঃ

মূলত ঘাড়ের ব্যথা কোন লক্ষণ নির্ধারণ করে না ।  এটি সাধারণত বিভিন্ন কারণ হতে পারে । আসুন দেখি নি কোন কোন কারনে এবং কিসের লক্ষণে  এই ব্যথাগুলো অনুভূতি হয় ।

  • একাধারে  দীর্ঘ সময় ধরে  ঘাড় কে একই অবস্থা নিয়ে রাখলে  এই ব্যথা হতে পারে । সাধারণত বলা যায় যে কম্পিউটারের সামনে  দীর্ঘ সময় ধরে বসে থাকবে এই সমস্যা হতে পারে । 
  • এছাড়াও রয়েছে লো পেশার বা নিম্ন রক্তচাপ । এই নিম্ন রক্তচাপ হলে ঘাড়ের মাংসপেশি টেনে ধরে এবং ঘাড় ব্যথা করে । 
  • ঘাড়ের ক্যান্সার হচ্ছে খুবই বিরল ।  তবে এটি ব্যাথা, শক্ত ,  ওজন হ্রাস ,এবং অন্যান্য লক্ষ্য সৃষ্টি করতে পারে ।
  •  বিভিন্ন আঘাত জনিত কারণেই ব্যথা হতে পারে । খেলাধুলা করতে অনেক সময় মনের অজান্তে ঘাড়ে আঘাত লাগলে ব্যাথা হতে পারে । 
  •  এছাড়াও  স্বাস্থ্য অবস্থা” যেমন আর্থ্রাইটিস,  স্পাইনাল  ডিস্ক ডিজেনারেশন বা মেরুদন্ডের অস্টিওপোরিসিস,ঘাড় ব্যথার কারণ হতে পারে । 
  •  এছাড়া আরো অন্যান্য কারণ এর মধ্যে রয়েছে গর্ব অবস্থায় মানসিক চাপ ঘুম কম হওয়া এসব করণীয় ঘাড়ে ব্যাথা হতে পারে ।

মূলত উপরের এই সকল সমস্যার কারণে ঘাড় ব্যাথা হতে পারে ।  এই ব্যথাগুলো সাধারণত  মানুষের মধ্যে দেখা যায় ।  এছাড়াও আরো কিছু কারণ রয়েছে যেমন, মাংসপেশিতে টান বা আঘাত পেলে এই ব্যথা হতে পারে ।  এছাড়াও ঘাড়ের প্রেস গুলো দীর্ঘ সময় ধরে একই অবস্থানে অবস্থান করলে এই ব্যাথা হতে পারে ।  স্নায়ু সংকোচিত ব্যথা শক্ত অসারতা বা দুর্বলতা হতে পারে ।

আরও পড়ুন

 তাই আসলে জেনে নেয়া যাক ঘাড়ের ব্যথার ওষুধ । কোন কোন ওষুধ সেবন করলে সকল ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে ।  আর চলুন দেখে নেই,

 ঘাড় ব্যথা ওষুধঃ

সাধারণত ব্যথা  নাশক যে সকল ওষুধ রয়েছে প্রথম অবস্থায় আপনাকে এগুলো সেবন করতে হবে ।  এসব ওষুধে যদি কাজ না হয় তাহলে আপনাকে ওষুধ পরিবর্তন করতে হবে । তাই আসুন দেখে নেই  ঘাড় ব্যথা ওষুধ এর নাম,

  1. অ্য়সপিরিন ।
  2. আইবু প্রোফেন ।
  3. অথবা নেপ্রোজেন ।

সাধারণত এই তিনটি ওষুধ ব্যাথা নাশক হিসেবে কাজ করে ।  এছাড়াও ব্যথা অনেকাংশেই কমতে সাহায্য করে এ জাতীয় ওষুধগুলো ।  তাই প্রথম অবস্থায় আপনি এই সমস্ত ওষুধ সেবন করবেন ।  আপনার ব্যথা যদি তীব্রতর না হয় তাহলে সকালে ওষুধ সেবন করবেন ।  এছাড়া আপনি ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে ওষুধ খেতে পারেন । 

এরপর দেখে নেব ঘাড় ব্যথার  ঘরোয়া চিকিৎসা কি? এ সকল ব্যথার  জন্য কিছু ঘরোয়া উপায় রয়েছে যেগুলো  সঠিক ব্যবহার করলে ঘাড় ব্যথা অনেক আংশিক কমে যায় ।  তাই চলুন জেনে নেয়া যাক সে সকল ঘরোয়া  নিম্নলিখিত,

ঘাড় ব্যথা হলে করণীয়ঃ

দীর্ঘক্ষণ অবস্থানে বসে থাকলে বা কম্পিউটারের সামনে একাধারে বসে থাকলে এই ব্যথা হতে পারে ।  এ সকল ব্যথা সাধারণত হয়ে থাকে । আসুন এর সকল ব্যথা তাকে নিরময়ের উপায় জেনে নেই । 

  • সর্বপ্রথম আপনাকে যে কাজটি করতে হবে সেটি হচ্ছে একাধারে বসে থাকা যাবে না ।  যদি একাধারে বসে থাকতে হয় তাহলে একটু হাটাহাটি করে । 
  •  এরপর নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে । যে সকল ব্যায়াম করলে ঘাড় ও কাঁধের পেশীগুলো শক্তিশালী হবে সে সকল ব্যায়াম করতে হবে । 
  • এছাড়া আপনি গরম বা ঠান্ডা সেঁক দিতে পারেন । গরম  শেক দিলে সেখানকার রক্তগুলো দ্রুত চলাচল করবে এবং ব্যথা কম ।  আর ঠান্ডা শেক দিলে সেখানকার কোষ শীতল থাকবে যা ব্যাথা কমাতে সাহায্য করবে । 
  •  এছাড়া আপনি ঘাড় টিপে নিতে পারেন বা  হালকা ম্যাসাজ  করে নিতে পারেন । এই মেসেজের ফলে আপনার ব্যথাটি চারিদিকে ছড়িয়ে পড়বে এবং ব্যথা দ্রুত কমে যাবে । 

এ সকল পদ্ধতি অবলম্বন করুন দেখবেন আপনার ব্যথা অতি দ্রুত সেরে যাবে ।  এ সকল কাজ বা ওষুধ খেয়ে যদি কাজ না হয় তাহলে অবশ্যই একজন ভালো ডাক্তারের পরামর্শ নিন এবং ওষুধ সেবন করুন ।  ডাক্তার যে সকল পরামর্শ দেয়া অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ সেবন করবেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *