March 2, 2024
বীর্য না ফেললে কি হয় ? কতদিন পর পর বীর্য ফেলা উচিত ?

বিভিন্ন রকম মানুষের বিভিন্ন রকম চিন্তায় আবার ধারা থেকে থাকে যেমন অতিরিক্ত পরিমাণে বীর্য শরীর থাকলে কি হয় ,  বীর্য না ফেললে কি হয় ? কতদিন পর পর বীর্য ফেলা উচিত ? . ।সাধারণত এমন নানা প্রশ্ন নিয়ে মাথায় ঘুরপাক খায় .  তাই আজকেই প্রশ্নের বিস্তারিত আলোচনা করা হবে . এই বিস্তারিত আলোচনার মাধ্যমে আপনারা আরও অনেক কিছু জানতে পারবেন .  তাই চলুন তাই চলুন দেখি নেয়া যাক এ দুটি প্রশ্নের বিস্তারিত আলোচনা গুলো  । এ সকল প্রশ্ন ছাড়া আরও একটি প্রশ্ন থেকে যায় সেটি হচ্ছে বীর্য তৈরি হতে কতদিন সময় লাগে ? 

তাই আসুন প্রথমত দেখে নেয়া যাক বীর্য তৈরি হতে কতদিন সময় লাগে । প্রথমত এই প্রশ্নটির উত্তর জেনে নেয়া যাক এই প্রশ্নটির উত্তর নিচে নিম্নলিখিত করা হয়েছে । 

বীর্য দেরিতে ফেলার ঔষধ

আমাদের অনেকের ধারণা হয়তোবা এটি অনেক আগে থেকেই তৈরি থাকে । যখন বের হবার সময় হয় তখন বের হয়ে আসে ।  আসলে এ ধারণারই ভুল ধারণা ।  কেননা এটি আগে থেকে তৈরি করা থাকে না ।  এটি কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে তৈরি হয় ।  তাহলে আমরা বুঝতে পারলাম যে বীর্য আগে থেকে তৈরি থাকেনা এটি কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে তৈরি হয় রক্ত থেকে । 

আরও পড়ুন

 এরপর আসুন জেনে নেয়া যাক  বীর্য না ফেললে কি হয় ? সাধারণত অনেকের ধারণা বীর্য না ফেললে শরীরের অনেক দিক দিয়ে ক্ষতি হয়ে থাকে ।  আসলেও  না ফেললে সাধারণত কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে ।  আর স্বাভাবিকভাবে যদি আপনি বীর্য দেহ থেকে বের করেন তাহলে এর থেকে বেশি পরিমাণে ক্ষতি দেখা যেতে পারে ।  তাই চলুন জেনে নেয়া যাক এর বিস্তারিত আলোচনা গুলো । 

বীর্য না ফেললে কি হয় ? কতদিন পর পর বীর্য ফেলা উচিত ?

 বীর্য না ফেললে কি হয়?

সাধারণত বীর্য না ফেললে শারীরিক কোন শারীরিক ক্ষতি হয় না ।  পুরুষ দেহে সবসময় শুক্রাণুর বীর্য তৈরি হতে থাকে ।   সাধারণত একজন পুরুষের দেহে সব সময় বীর্যপাত তৈরি হতে থাকে ।  বীর্যপাত না হলে পরবর্তীতে বীর্য আবার  শরীরে শোষিত হয়ে যায় । এছাড়াও সহবাস এবং স্বপ্ন দোষের মাধ্যমে বীর্যপাত হয় । এর থেকে শরীরের মধ্যে যে সকল বীর্য রয়েছে সেগুলো বের হয়ে যায় ।  তাই অযথা হস্তমৈথুন বা মাস্টারবেশন করার কোন প্রয়োজন নেই ।   আপনি  যদি হস্তমৈথুন বামমাস্টারবেশন করেন তাহলে আপনার শরীর বিভিন্ন রকমের সমস্যা দেখা দিতে পারে ।  তাই এ থেকে দূরে থাকা অনেক ভালো । 

বীর্য না ফেললে কি হয় তার নিচে একটি ধাপে উল্লেখ করা হয়েছে । 

  • সাধারণত অস্বস্তি ও  উত্তেজনা সৃষ্টি হতে পারে । 
  • এছাড়াও বিরক্তি বা হতাশার সৃষ্টি হতে পারে । 
  •  এরপর উদ্বেগ বা দুশ্চিন্তার সৃষ্টি হতে পারে ।

সাধারণত এই তিনটি সমস্যা দেখা দিতে পারে ।  এই তিনটি সমস্যা সাধারণ সমস্যা ।  তবে আপনি যদি হস্তমৈথুন করেন তাহলে এর থেকে অনেক বড় সমস্যা দেখা দিতে পারে আপনার শারীরিক পরিবর্তনে ।  তাই এই সমস্ত অসামাজিক কার্যক্রম থেকে দূরে থাকতে হবে । 

বীর্য না ফেললে কি হয় ? কতদিন পর পর বীর্য ফেলা উচিত ?

এর পরবর্তী আসন জেনে নেয়া যাক কতদিন পর পর বীর্য ফেলা উচিত? ।  সাধারণত আমরা একটি বিষয় সবাই অবগত আছি যে যদি স্ত্রী বা  সহকামি এর যৌন মিলন ছাড়া অন্য কোন  পন্থা বা পদ্ধতি অবলম্বন করে বীর্য করি তাহলে আমাদের শরীর থেকে যে পরিবারে ক্ষতি হবে তা আমাদের ধারণার বাইরে ? 

কতদিন পর পর বীর্য ফেলা উচিত ?

এ বিষয়ে অনেক জনের অনেক রকম ধারণা রয়েছে । কেউ বলেছে সপ্তাহে ২-৩ আবার কেউ বলেছে মাসে ২-৩  বার ।  এটি ভেবে খুশি হওয়ার কোন কারণ নেই যে আপনি তো প্রতি মাসে বা সপ্তাহে ২-৩  বার ফেলে থাকেন ।  এটি আপনার শরীরের জন্য কতটা ঝুঁকিপূর্ণ তা আপনি কল্পনা করতে পারবেন না ।  সাধারণত একজন ব্যক্তির প্রতিমাসে তিন থেকে চার বার বা এর কম বা বেশি  স্বপ্নদোষের মাধ্যমে বের হয়ে থাকে ।  এর পরে যদি আপনি বিভিন্ন মাধ্যমে বীর্য বের করে থাকেন সেটি আপনার শরীরের জন্য অনেকটা ঝুঁকিপূর্ণ । বীর্য বের করার ফলে কতটা ঝুঁকিপূর্ণ তা নিচে একটি তালিকা দেয়া হলো

  • অতিরিক্ত বীর্যপাতের ফলে শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে । 
  •  অতিরিক্ত বীর্যপাতের ফলে পুরুষাঙ্গীরের শক্তি হারিয়ে ফেলে । 
  •  অতিরিক্ত বীর্যপাতের ফলে কাণ্ডকোষ ব্যাথা করতে পারে । 
  •  অতিরিক্ত বীর্যপাতের ফলে  প্রসাবের আগে বীর্য বের হয়ে যেতে পারে । 
  • অতিরিক্ত বীর্যপাতের ফলে আপনার স্ত্রী বা সহকামিকে পর্যাপ্ত সময় ঠিকই বঞ্চিত হতে পারে । 

এছাড়াও আরো অনেকগুলো ক্ষতিকার দিক লক্ষণ দেখা দিতে পারে ।   তাই এই সমস্ত কাজ থেকে দূরে থাকা শরীরের এবং পুরুষাঙ্গের জন্য অনেক উপকারিতা  । সাধারণত এটি আমাদের ইসলামের দিক থেকে অনেক বড় একটি গুনাহ ।  সব দিক  মাথায় রেখে এ সমস্ত কাজ থেকে বিরত থাকা শ্রেয় ।  আপনার যদি সব সময় অতিরিক্ত পরিমাণে  উত্তেজনা সৃষ্টি হয় তাহলে  আপনার সবথেকে ভালো হবে বিয়ে করে না ।  তবুও এই সমস্ত কাজ থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করবেন সবসময়  । 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *