May 18, 2024
মিল্ক শেক এর উপকারিতা । মিল্ক শেক এর দাম কত । মিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে ।

বর্তমানে মিল্ক শেক হচ্ছে একটি জনপ্রিয় দুধ জাতীয় খাবার । এটি সাধারণত পানিও যার দুধ ফল এবং অন্যান্য উপাদান দ্বারা তৈরি কৃত ।  এছাড়াও এটি একটি সুস্বাদু খাবার এবং এর মধ্যে রয়েছে পুষ্টিকর পানি উপাদান প্রদান করতে পারে । আজকে সম্পূর্ণ আলোচনা হবে মিল্কশেকের উপর । মিল্ক শেক এর উপকারিতা , মিল্ক শেক এর দাম কত? মিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে? এ সকল নানা প্রশ্নের উত্তর দিয়ে যাবে । মিল্ক শেক এর মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন ও ক্যালসিয়াম যা একজন রোগা পাতলা মানুষকে ফিট করতে সাহায্য করে ।  এছাড়া আর বিভিন্ন রকমের  পুষ্টি উপাদান  রয়েছে ।  আসুন তাহলে জেনে নিন মিল্ক শেক  এর উপকারিতা সম্পর্কে ।  এর উপকারিতা সম্পর্কে নিচে নিম্নে লিখিত আলোচনা করা হয়েছে , 

 মিল্ক শেক এর উপকারিতাঃ

যারা মিল্ক শেক  সম্বন্ধে ধারণা আছে তারা অবশ্যই জানেন যে এটি একটি পানীয় যা দুধ এবং ফল বা অন্যান্য উপাদান দ্বারা তৈরি কৃত ।  আর যারা জানেন না তারা নিজের নিম্নলিখিত আলোচনা থেকে ধারণা নিতে পারেন । 

  • মিল্কশেকের মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন এবং ক্যালসিয়াম । মিল্ক শেক  সেবনের ফলে আপনার দেহের মধ্যে ক্যালসিয়াম এবং প্রোটিনের অভাব পূরণ করে ।  ক্যালসিয়াম সাধারণত আপনার হাড়ের  স্বাস্থ্যের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন কররে ।  
  • এছাড়াও আপনার শরীরের শক্তি জোগাতে মিল্ক শেক এর  ব্যবহার অতীত কার্যকর ।  এবং কেননা এটির মধ্যে রয়েছে প্রোটিন ও কার্বোহাইড্রেট  এবং চর্বি সমৃদ্ধ, যা আপনার শরীরে শক্তি সরবরাহ করতে সাহায্য করে । 
  •  এরপর রয়েছে ওজন বৃদ্ধিতে কাজ করে ।  অনেকজনই প্রশ্ন করে থাকে এরপর রয়েছে মিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে?  তাদের প্রশ্নের জবাব হবে উত্তর হচ্ছে হ্যাঁ অবশ্যই এটি খেলে ওজন বৃদ্ধি হয় ।  কেমনে এটির মধ্যে রয়েছে ক্যালোরি এবং পুষ্টি একটি ঘন উৎস ।  যা ওজন বাড়াতে চাইলে এমন লোকদের জন্য অনেক উপকারে আসে । 
  •  এরপর আসে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে মিল্ক শেক এর কার্যকরিতে অনেক কেননা এর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন এবং খনিজ সমৃদ্ধ,  যা শরীরকে সংক্রমনের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাহায্য করে । 
  • মিল্ক শেক ক্ষুধা কমাতে সাহায্য করতে পারে, এর মধ্যে রয়েছে প্রচুর প্রোটিন এবং ফাইবার সম্বন্ধে যা ক্ষুদার হারমোন গুলোকে নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে ।

সাধারণত মিল্ক শেক যে সকল পুষ্টি রয়েছে তা উপরে লিখে দেয়া হয়েছে এছাড়াও বিভিন্ন রকমের উপকারিতা ।  আপনি যদি চান তাহলে বাড়িতে বসে মিল্ক শেক  তৈরি করে নিতে পারেন । তাই আসুন জেনে নেই কিভাবে বাড়িতে বসে মিল্ক শেক তৈরি করবেন । 

ঘরোয়া পদ্ধতিতে মিল্ক শেক কিভাবে তৈরি করবঃ

 আসেন স্বল্প পরিসরে কিছু তথ্য দিয়ে যাই যা আপনাকে মিল্কশেকের মত হুবহু তৈরি করতে পারবেন । প্রথমত আপনি উচ্চমানের দুধ ব্যবহার করুন  । কেননা দুধের মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন ও ক্যালসিয়াম ।  এরপর ফল বা অন্যান্য উপাদান যোগ করুন যেমন, আপেল, কলা ,  আঙ্গুর ,  বা স্ট্রবেরি যোগ করতে পারেন  । এছাড়াও আরো কিছু যোগ করতে পারেন যেমন  গ্রিন টি ,  অটমিল ,  বা বাদাম যোগ করে মিল্ক শেককে  আরো পুষ্টিকর করে  তুলতে পারেন ,।অতিরিক্ত পরিমাণে মিষ্টি এড়িয়ে চলার চেষ্টা করবেন ।  এছাড়া আপনি এর মধ্যে চিনিবে মধু যোগ করে খেতে পারেন । 

 এরপর আসুন জেনে নেয়া যাক মিল্ক শেকের দাম সম্পর্কে । যারা নতুন তারা হয়তো জানে না মিল্ক শেকের দাম কত?  আসেন তাহলে নিচে জেনে নেয়া যাক এর দাম সম্পর্কে । মিল্কশেকের দাম নিছে নিম্নলিখিত করা হয়েছে দেখে নিতে পারেন, 

মিল্ক শেকের দাম কত?

  • আপনি যদি ছোট্ট মিল্ক শেক প্রায় ২০০  মিলি লিটার পরিমাণ হয় তাহলে এর দাম পড়বে =২০০ থেকে ৩০০ টাকা ।
  • মাঝারি মিল্ক শেক  যেটা প্রায় 300 মিলিমিটার পরিমাণের, এর দাম পড়বে ৫০০-৭০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যেতে পারে । 
  •  এরপর আপনি নিজেই বড় ধরনের মিল্ক শেক নিতে চান তাহলে ৮০০-১০০০ টাকা পর্যন্ত নিতে পারে । 

 তবে সঠিকভাবেই এর দাম নির্ধারণ করা খুব দুষ্কর ।  কেননা প্রতিনিয়ত এ সকল পণ্যের দাম ওঠানামা করার কারণে সঠিক নির্ধারণ করা খুবই কষ্টসাধ্য ।  তাই আপনি আপনার নিকটস্থ কোন দোকান থেকে এর মূল্য বা দাম জেনে নিতে পারেন । 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *