April 13, 2024
হস্ত মৈথুনের উপকারিতা কি । হস্ত মৈথুনের ক্ষতিকর দিক । হস্ত মৈথুন থেকে বাচার উপায় । masterbeson

হস্ত মৈথুন বা masterbeson উপকারিতা রয়েছে তবে এর উপকারিতার থেকে অপকারিতা অনেক বেশি ।  আসুন আজকে কোন কোন বিষয়ে আলোচনা করা হবে সে সকল বিষয় জেনে নেয়া যাক, হস্তমৈথুনের উপকারিতা কি?  হস্তমৈথুনের ক্ষতিকর দিক?  হস্তমৈথুন থেকে বাঁচার উপায়,  হস্তমৈথুনের কতদিন পরপর করা উচিত ,  মেয়েদের হস্তমৈথুনের ক্ষতিকর প্রভাব ইসলাম , হস্তমৈথুন করলে কি হয়?। আজকের এই আলোচনায় এই সকল বিষয়ে আপনাদের জানাবেন ।

সাধারণত হস্তমৈথুন ভাবছিস স্বল্প সময়ের আনন্দদায়ক যৌন সংলাপ যা শরীর এবং মনের উন্নতি উপকার করতে সাহায্য করে ।  কিন্তু আমরা এটা কখনোই ভাবি নি  যে সামান্য এই আনন্দদায়ক মুহূর্তটি আমাদের জীবন ও শরীরের নিয়ে জন্য কতটা খারাপ প্রভাব  ফেলতে পারে । তাই আসেন প্রথমত জেনে নেয়া যাক হস্তমৈথুনের উপকারিতা সম্পর্কে ।  হস্তমৈথুনের উপকারিতা সম্পর্কের নিচে নিম্নলিখিত করা হয়েছে । 

হস্তমৈথুনের উপকারিতা কি ঃ

হস্তমৈথুনের ফলে  সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য আনন্দ উপভোগ করা ।  আর এই আনন্দ উপভোগ করার জন্য অনেকেই হস্তমৈথুন করে থাকে ।  আসুন ধারাবাহিকভাবে এর বিস্তারিত আলোচনা করা যাক ,

  • হস্তমৈথুনের ফলে মনের উন্নতি সাধন ঘটে ।  মানসিক চাপ উদ্যোগ এবং দুঃখ কমাতে পারে এই কাজটি করাতে । 
  • হস্তমৈথুনের ফলে পুরুষাঙ্গের বেশি গুলো শক্তিশালী করে এবং রক্ত সঞ্চালন উন্নতি সাধন করেন ।  তবে অতিরিক্ত মাত্রায় হস্তমৈথুন করলে পুরুঙ্গের দুর্বল হয়ে পড়বে ।  যা আর পুনরায় আগের মত  এত শক্তিশালী হবে না । 
  • হস্ত মৈথন করলে সিমিত সুখ অনুভব হয় । 

সাধারণত উপরের যে সকল উপকারিত রয়েছে তা উল্লেখ করা হয়েছে এরপর আমরা জেনে নেব এর অপকারিতা সম্পর্কে ।  আসুন আমরা জেনে নেই হস্তমৈথুনের অপকারিতা সম্পর্কে । হস্তমৈথুনের অপকারিতা নিচে নিম্নলিখিত করা হয়েছে ,

হস্ত মৈথুন অর্থ কিঃ

হস্তমৈথুন এর অর্থ হচ্ছে সাধারণত  নিজের  যৌনাঙ্গে নিজ থেকে যৌন তৃপ্তী উপভোগ করা । এছাড়া আরো বিভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করা যেতে পারে ।  যেমন নিজে যৌনাঙ্গ বা পুরুষাঙ্গে নিজ হস্তে বীর্য বের করাকে হস্তমৈথুন বলা হয় ।

 হস্তমৈথুনের ক্ষতিকর দিক বা অপকারিতাঃ

হস্তমৈথুন করলে কি হয় । হস্তমৈথুন যতটা ভালো তার থেকে কয়েক শত গুণ খারাপ ।  কেননা এই কজটির ফলে পুরুষাঙ্গ ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে পড়ে ।  শারীরিক সমস্যা ছাড়াও আরো বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে ।  তাই আসুন দেখে নেয়া যাক হস্তমৈথুনের ক্ষতিকর দিক বা অপকারিতা কি কি । এছাড়াও হস্তমৈথুন করলে কি কি সমস্যা হতে পারে লিখিত করা হলো 

  • হস্তমৈথুন করলে সবথেকে বড় যে ক্ষতিটি হয় সেটি হচ্ছে শারীরিক সমস্যা ।  সাধারণত দেখা যায় যে এই সমস্ত কাজের ফলে পুরুষাঙ্গ এর  যে আগের শক্তি রয়েছে সেই শক্তি ধীরে ধীরে কমতে থাকে । 
  •  এছাড়াও শরীর ধীরে ধীরে কঙ্কালের মত হয়ে যায় । 
  • এরপর বিভিন্ন রকমের শারীরিক সমস্যা দেখা দেয় যেমন, মেহ ,  আমাশয় ,  প্রস্রাবের আগে বীর্য বের হওয়া  ইত্যাদি আরও বিভিন্ন রকমের সমস্যা দেখা দিতে পারে । 
  •  পায়খানা বা  প্রস্রাব করার সময় পুরুষাঙ্গ দিয়ে বীর্য বের হয় । 
  • অযথা বা একটু খারাপ চিন্তা ভাবনার ফলে  বীর্য বের হওয়া ।সাধারণত এছাড়া আরো অনেক রকমের সমস্যার রয়েছে যেগুলো হস্তমৈথুনের ফলে ঘটে থাকে ।   

তাই আজকে থেকে আমরা সবাই সাবধানতা অবলম্বন করব এবং হস্তমৈথুন থেকে বিরত থাকার চেষ্টা করব ।  কেননা পরবর্তীতে বিয়ের সময় এর ফলাফল সবথেকে খারাপ হবে । আপনি যদি হস্তমৈথুনের সাথে জড়িত থাকে তাহলে আজ থেকে বেরিয়ে আসুন ।  কেননা এটি এক পর্যায়ে নেশায় পরিণত হয় । 

 এবার তাহলে আসুন জেনে নেয়া যাক হস্তমৈথুন থেকে বাঁচার উপায় কি ।  কোন কোন কাজগুলো করলে এই সাইমনের সাথে কে বেরিয়ে আসতে পারবেন সে সকল কিছু টিপস নিয়েছে উল্লেখ করা হয় ।

 আরও পড়ুন

হস্তমৈথুন থেকে বাঁচার উপায়ঃ

হস্তমৈথুন হচ্ছে একটি অসামাজিক কাজ ।  এই কাজটি করলে উপকার থেকে ক্ষতি দিকটা অনেক বেশি ।  কেননা এই কাজের জন্য শারীরিক সমস্যা ছাড়াও আরো পারিবারিক বা অন্যান্য সমস্যা হতে পারে ।  আজকে আমরা জানবো এই হস্তমৈথুন থেকে বাঁচার উপায় কি ।  কোন কাজগুলো করলে হস্তমৈথুন থেকে বাঁচতে পারবেন  সে সকল তথ্য নিচে দেওয়া হল,

  • প্রথমত আপনাকে সব সময় পাক পবিত্র থাকতে হবে ।  পাক পবিত্র থাকলে এই কাজ থেকে শত পারসেন্ট বিরত থাকতে পারবেন ।  এছাড়া আপনি প্রতিনিয়ত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়তে পারেন ।  আমরা সবাই জানি নামাজ সকল পাপ কাজ থেকে বিরত রাখে । 
  •  এরপর আপনি আরেকটি কাজ করতে পারেন সেটি হচ্ছে আপনি মনে মনে একটি তারিখ লিখে রাখতে পারেন ।  আর মনে মনে প্রতিজ্ঞা করেন আমি  সামনের দু মাস হস্তমৈথুন করবো না ।  দুই মাস হস্তমৈথুন না করার ফলে নিজে নিজেকে পুরুষকৃত করুন । 
  •  এছাড়াও অশ্লীল ভিডিও থেকে দূরে থাকুন ।  যে সকল ভিডিও আপনার জন্য উত্তেজনা বৃদ্ধিতার বিশেষ সকল ভিডিও দেখা বন্ধ করুন । 
  •  এরপর রয়েছে আপনি কখনো একা ঘুমাতে যাবেন না ।  আপনি যদি একা ঘুমাতে যান তাহলে বিভিন্ন প্রকার অশ্লীল চিন্তাভাবনা আপনার মনে ঘুরপাক খাবে  আর তখনই হস্তমৈথুন শুরু করবেন ।  তাই ঘুমানোর আগে কাউকে সাথে নিয়ে ঘুমান ।  তাহলে এই সকল চিন্তা ভাবনা আসলেও করার কিছু থাকবেনা । 
  •  আপনার পুরুষাঙ্গে কখনো পিচ্ছিল জাতীয় , যেমন সাবান ,  তেল  ইত্যাদি ব্যবহার করা যাবে না ।  এই সকল পিচ্ছিল জাতীয় জিনিস ব্যবহার করলে আপনার উত্তেজনা বৃদ্ধি পাবে এবং  হস্তমৈথুন করার ইচ্ছা জাগবে ।
  • সবথেকে জরুরী কথা হচ্ছে আপনার মানুষ হওয়াতে ইচ্ছা থাকতে হবে যে আমি আজ থেকে হস্তমৈথুন ছেড়ে দেবো ।  আপনি যদি মনে মনে বলেন আর সে অনুযায়ী কাজ না করেন তাহলে আপনি কখনো হস্তমৈথুন ছাড়তে পারবেন না ।  আপনাকে   দৃঢ় ভাবে অটল থাকতে হবে তাহলেই আপনি পারবেন । 

এরপর

এরপর আসুন জেনে নেয়া যাক যে হস্তমৈথুনের কতদিন পরপর করা উচিত সেই সম্পর্কে ।  মূলত হস্তমৈথুনের কতদিন পর করা উচিত তা নির্ভর করে ব্যক্তির ব্যক্তিগত পছন্দ এবং প্রয়োজন এর উপর ।  তাই  চলুন নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক,

 হস্তমৈথুনের কতদিন পর করা উচিতঃ

সাধারণত একটি ব্যক্তির হস্তমৈথুন নির্ভর করে তার ব্যক্তিগত ব্যক্তির পছন্দ এবং প্রয়োজনের উপর ।  কিছু কিছু লোক রয়েছে যারা প্রতিদিন করে অন্যরা সাপ্তাহে একবার বা তার কম ।  আপনি  দেখবেন যে হস্তমৈথুন না করলেও প্রতি মাসে দুই থেকে তিন বার স্বপ্নদোষ হয়ে থাকে ।  আপনার যে অর্জিত বীর্য গুলো রয়েছে সেগুলো বের হয়ে যায় । অযথা আপনার শরীরের ক্ষতি কেন করবেন ।  আপনি হস্তমৈথুন করলে আপনার উপরের যে সকল সমস্যাগুলো বলা হয়েছে সেই সকল সমস্যা হতে পারে এবং পরবর্তীতে আপনার পুরুষাঙ্গ বিকলাঙ্গ হয়ে যেতে পারে ।  তাই হস্তমৈথুন থেকে দূরে  থাকুন । আপনাদের সকলের উদ্দেশ্যে বলা যাচ্ছে এটি একটি জঘন্য কাজ যা আপনার প্রতিনিয়ত করে থাকেন । এই সমস্যা অতি সহজেই সমাধান করা খুব দুষ্কর ।  তাই এই সকল  কাছ থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করুন । 

মেয়েদের হস্তমৈথুনের ক্ষতিকর প্রভাব ইসলামঃ

সাধারণত আমরা জানি হস্তমৈথুন একটি  কবিরা গুনাহ । ছেলে এবং মেয়েদের হস্তমৈথুনের ক্ষতিকর প্রভাব যেমন আলাদা তে্মন এর সমস্যা গুলোও আলাদা । মেয়েরা যদি হস্তমৈথুন করে তাহলে পরবর্তিতে বিভিন্ন সমস্যা দেখা যায় 

আসুন তাহলে দেখে নেয়া যাক মেয়েদের হস্তমৈথুনের ক্ষতির প্রভাব ইসলাম কি বলে । এছাড়াও জানবো মেয়েদের হস্তমৈথুনের ক্ষেত্রে ক্ষতিকর দিক গুলো কি কি প্রভাব ফেলতে পারে সে সকল বিষয় নিয়ে। 

প্রথমত জেনে নেয়া যাক হস্তমৈথুনের ক্ষতিকার প্রভাব  ইসলাম 

  • ইসলাম বলে যারা নিজের উপর জুলুম করে  বা হস্তমৈথুন করে বীর্য বের করে  কিয়ামতের দিন আল্লাহ সুবহানাল্লাহ তায়ালা তাদেরকে বলবে এই শুক্রানু গুলোর তুমি জিবন দাও যেগুলো তুমি  অন্যায় ভাবে নিজের খায়েশকে চরিত্তাক্ত করার জন্য করেছো তুমি জীবন দাও । এজন্য এটা অনেক বড় ধরনের কবিরা গুনা  । 
  • হস্তমৈথুনের ফলের শরীর থেকে যে সকল সিমেন্ বের হয় তা থেকে ২০ কোটি শুক্রানু থাকে । অযথা কেন এতো বড় পাপ কাজ করবেন । 

আসুন তাহলে এবার জেনে হস্তমৈথুনের ফলে মেয়েদের কোন কোন সমস্যাগুলো হয়ে থাকে তা নিচে নিম্নলিখিত করা হলো,

মেয়েদের হস্তমৈথুনের ক্ষতিকার প্রভাবঃ

  • প্রথমত যে সমস্যাটি হয়ে থাকে সেটি হচ্ছে বিয়ের পর বাচ্চা না হওয়ার । বিভিন্ন সময় দেখা যায় যে বিয়ের পর মেয়েদের বাচ্চা না হওয়ার এটি একটি প্রধান কারণ । 
  •  আরেকটি কারণ হচ্ছে মেয়েদের সাদা মাসিক বা  পিরিয়ড হওয়া । 
  •  এছাড়া আরো মেয়েদের বিভিন্ন রকমের শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে তা এখন দেখা না দিলেও পরবর্তীতে দেখা দিতে পারেন । 
  •  তাই এই সকল কাজ থেকে বিরত থাকা অতি জরুরী । 

নির্দেশনা

এই সমস্যাটির ধীরে ধীরে অভ্যাসে পরিণত হয় এবং ধুকে ধুকে মানুষের জীবনকে নষ্ট করে দেয় । তাই এ সমস্ত অসামাজিক কাজ থেকে নিজেকে বিরত রাখা জরুরী ।  এই প্রশ্নের মাধ্যমে আপনাকে সকল তথ্য জানিয়ে দেয়া হয়েছে এখন নির্ভর করে আপনার উপর আপনি কোন দিকটি বেছে নিবেন । 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *